করোনায় পশুপাখির ওপর মহানুভবতার পরিচয় দিলেন নজরুল ইসলাম দুলাল

ঝিনাইদহ সংবাদ ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতিতে অসহায় ক্ষুধার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর পাশাপাশি এবার পশুপাখির আহারের ব্যবস্থা করে মহানুভবতার পরিচয় দিলেন বিস্বাস বিল্ডার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম দুলাল। রাস্তায় নেমে পশুপাখিদের খাবার খাওয়ানোর একটি ভিডিও ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে শেয়ারের পর অনেকেই প্রশংসা করেন।

Gepostet von Nazrul Islam am Dienstag, 31. März 2020

বিশ্বজুড়ে যখন করোনাভাইরাসের প্রকোপে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে চারিদিকে। বাংলাদেশেও এই পরিস্থিতিতে মানুষ ঘরবন্দি। বন্ধ যানবাহন, দোকানপাট। খেটে খাওয়া মানুষের ক্ষুধার সাথে সাথে পশু পাখিরাও ক্ষুধার তাড়নায় ছটফট করতে করতে এদিক ওদিক ঘুরে বেড়াচ্ছে। মানুষের দেওয়া খাবারের উপর নির্ভরশীল পশুপাখিরা। বিভিন্ন দোকানপাট ও রাস্তায় মানুষের উপস্থিতি না থাকায় মানুষের উচ্ছৃষ্ঠ খাবারও আর জুটছে না এই সব কুকুর বিড়াল ও বিভিন্ন পশুপাখির। ঠিক এমন একটা সংকটময় মূহুর্তে আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম দুলাল এর ফেসবুকে শেয়ার করা ভিডিওতে দেখা যায় বিশ্বাস বিল্ডার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম দুলাল নিজে হাতে বাসা থেকে খাবার নিয়ে করোনা আতঙ্কে ধানমন্ডির জনমানবশুন্য একটি এলাকাতে ঘুরে ঘুরে পথে যে সমস্থ ক্ষুধার্ত পশুপাখি যেমন কুকুর বিরাল ঘুরছে তাদের খাবার খাওয়াচ্ছেন। পশুপাখির প্রতি তার এই ভালোবাসা দেখে অনেকেই মনে করছেন নজরুল ইসলাম দুলাল এর এই অসাধারন কাজটি সাধারন মানুষের মাঝে এই পরিস্থিতিতে পশুপাখির প্রতি আরো যত্নবান হবার অনুপ্রেরণা যোগাবেন।

Gepostet von Nazrul Islam am Dienstag, 31. März 2020

 

ভিডিওটিতে নজরুল ইসলাম দুলাল বলেন, প্রিয় দেশবাসী ও শহরবাসী যে যেখান থেকে আমার এই ভিডিওটি দেখবেন আপনাদেরকে অনুরোধ করি আপনারা আমরা সবাই ঘরে বন্দি থাকার কারণে এছাড়াও শহরের হোটেল ও চায়ের দোকানগুলোও বন্ধ থাকার কারণে মানুষের যে অবশিষ্ট খাবার খেয়ে এই সব কুকুর বিড়ালসহ অন্যান্য পশুপাখি তাদের ক্ষুধা মেটাতো সেই খাবারগুলোও আজকে আর নেই। ক্ষুধার্ত এই কুকুর বিড়ালদের কান্নাকাটি দেখে এগিয়ে আসার মতও আর কেউ নাই। তাই বিশেষ করে আমরা যারা শহরে থাকি আপনারা আপনাদের বাসার অবশিষ্ট খাবার গুলো নষ্ট না করে বাড়ির পাশে রাস্তাই রাখবেন। আর এভাবে এই সব পশুপাখিদের মুখে যদি খাবারগুলো তুলে দেবার ব্যবস্থা করি তাহলে এরা বেঁচে যাবে। বর্তমানে সবাই যেখানে মানুষের কথা বলছেন পাশাপাশি এই সমস্থ পশুপাখিদের কথাও আমাদের বলতে হবে কারন মানুষের সুষ্ঠ ভাবে বেচেঁ থাকতে হলে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় এই সব পশুপাখি আমাদের রক্ষা করতে হবে। যারা বিভিন্ন টিভিতে টকশোতে কথা বলেন তাদের কাছেও এই বর্তমান পরিস্থিতিতে কিভাবে পশুপাখিগুলো রক্ষা করা যায় সেই বিষয়ে কথা বলার অনুরোধ করেন।

 

প্রসঙ্গত, বিস্বাস বিল্ডার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে তার নিজ জেলা ঝিনাইদহে অসহায় ও ক্ষুধার্ত মানুষের মুখে খাবার তুলে দেবার জন্য চাল, আলু, তেল, সাবান ও মাস্কেরর বিশ হাজার প্যাকেট খাবার নিয়ে বিতরণ শুরু করেছেন। এছাড়াও ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে প্রায় সাতশত কারাবন্দিদের সাবান ও মাস্ক দিয়ে সহায়তা করেছেন।

Gepostet von Nazrul Islam am Dienstag, 31. März 2020